মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

ক্র.নং

সেবা/কার্যক্রমসমূহ

সেবা প্রদানকারী কর্মকর্তা

কোন ব্যক্তির আবেদনের প্রেক্ষিতে তথ্য অধিকার আইন অনুযায়ী তথ্য সরবরাহ/প্রদান করা হয়।

উপ-কীপার

শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন সংগ্রহশালার ০৩টি স্থায়ী গ্যালারি দেশী-বিদেশী সর্বস্তরের জণগণ পরিদর্শন করতে পারেন।

সহকারী কীপার

শিক্ষা কর্মসূচির আওতায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান/প্রশিক্ষণ একাডেমী/বিভিন্ন সংস্থার আবেদনের প্রেক্ষিতে সংগ্রহশালা বিনা টিকিটে পরিদর্শন করতে পারেন।

উপ-কীপার

জয়নুলের জন্ম বার্ষিখী ও মৃত্যু বার্ষিকী এবং জাতীয় দিবসগুলোতে শিশু-কিাশোর চিত্রাঙ্কন,সুন্দর বাংলা হাতের লেখা ইত্যাদির আয়োজন করা হয়।

উপ-কীপার

বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে জয়নুল শিশু চারম্নপীঠের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পরিচালক/উপ-কীপার

যে কোন ব্যক্তি বা সংস্থা সংগ্রহশালার  মিলনায়তনে নির্দিষ্ট ভাড়ার বিনিময়ে অরাজনৈতিক সেমিনার, আলোচনা সভা,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও প্রদর্শনীর আয়োজন করতে পারেন।

উপ-কীপার

জাতীয় জাদুঘর কর্তৃক প্রকাশিত গবেষণা গ্রন্থ ও ভিউকার্ড সংগ্রহশালার বিক্রয় কেন্দ্রে পাওয়া যায়।

বিক্রয় কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মচারি

বিভিন্ন মন্ত্রনালয় থেকে প্রাপ্ত পত্রের চাহিদা অনুযায়ী তথ্য প্রদান করা হয়।

উপ-কীপার

বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের শাখা জাদুঘরসমূহ :

ওসমানী স্মৃতি জাদুঘর, সিলেট

আহসান মঞ্জিল জাদুঘর, ঢাকা

জিয়া স্মৃতি জাদুঘর, চট্রগ্রাম

শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন সংগ্রহশালা,ময়মনসিংহ

 

সহকারী- কীপার

উপ-কীপার

উপ-কীপার

উপ-কীপার

১০

সংরক্ষণযোগ্য নিদর্শন পাওয়া গেলে এবং উপহার হিসেবে দিতে চাইলে সংগ্রহশালায় উপ-কীপারের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

উপ-কীপার

১১

আপনার মূল্যবান মতামত/পরামর্শ সংগ্রহশালায় রক্ষিত গ্যালারির মন্তব্য বহিতে লিপিবদ্ধ করতে পারেন।

উপ-কীপার

১২

তিন কক্ষ বিশিষ্ট একটি কটেজ রয়েছে।এখানে সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও বিধিবদ্ধ সংস্থার কর্মকর্তাবৃন্দ অবস্থান করতে পারেন।

কটেজ এটেনডেন্ট

১৩

১২০ আসন বিশিষ্ট একটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হলরুম রয়েছে যা বিভিন্ন অনুষ্ঠানের জন্য ভাড়া প্রদান করা হয়ে থাকে।

উপ-কীপার

১৪

একটি উন্মুক্ত মঞ্চ ও মাঠ রয়েছে যা বিভিন্ন অনুষ্ঠানের জন্য ভাড়া প্রদান করা হয়ে থাকে।

উপ-কীপার

১৫

শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন সংগ্রহশালার নিয়ন্ত্রণাধীন জয়নুল শিশু চারুপীঠ নামে একটি চারুকলা শিক্ষার স্কুল রয়েছে।প্রতি শিক্ষাবর্ষে এখানে ২৫০ জন প্রথম থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী সপ্তাহে দুইদিন প্রতি বৃহস্পতিবার বেলা ০৩.০০টা থেকে বিকাল ০৫.০০টা এবং প্রতি শুক্রবার বেলা ১০.০০টা থেকে বেলা ১২.০০টা পর্যন্ত চারুকলায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষকের নিবিড় তত্ত্বাবধানে ছবি আঁকা শেখে।  

উপ-কীপার


Share with :

Facebook Twitter